চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী গরুর কালা ভুনা

চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী গরুর কালা ভুনা , আপুরা ঈদে তৈরি করতে পারেন ,কালা ভুনা মানে কিন্তু মাংসটাকে ভেজে পুড়িয়ে কালো করা নয় বরং মশলা সহ মাংস কম আঁচে কালচে করে রান্না করা ,মশলা মাংস কোনো কিছুই পুড়ে যাবে না আর মাংস হবে নরম এটাই হচ্ছে আসল কালা ভুনা অথেন্টিক রেসিপি ভাত , পোলাও , রুটি দিয়ে খেতে সত্যি অসাধারণ

গরুর কালা ভুনা

রেসিপি – 👇
উপকরণ :
হাড় , চর্বি সহ গরুর মাংস – ১ কেজি
পিয়াজ কুচি – হাফ কাপ
পিয়াজ বেরেস্তা – হাফ কাপ
তেল – হাফ কাপ
আদা বাটা – ১ টেবিলে চামচ
রসুন বাটা – ১ টেবিল চামচ
হলুদ গুড়া – ১ চা চামচ
মরিচ গুড়া – ১ টেবিল চামচ ( স্বাদমত )
ধনিয়া গুড়া – ১ টেবিল চামচ
লবন – স্বাদমত
তেজপাতা – ২ টি
দারুচিনি – ২ টুকরা
এলাচ – ২-৩ টি
কালো এলাচ – ১ টি
লং – ৪-৫ টি
কালো গোল মরিচ – ৩-৪ টি
কাবাব চিনি – ৩-৪ টি
স্টার এন্স ( তারা মশলা ) – ১ টি
ভাজা জিরার গুড়া – ১/৪ চা চামচ
গরম মসলার গুড়া – ১/৪ চা চামচ
জয়ফল গুড়া – ১/৪ চা চামচ
জয়েত্রি – সামান্য ১ গ্রামের মত

বাগারের জন্য –
সরিষার তেল – ১/৪ কাপ
পিয়াজ কুচি – ২ টেবিল চামচ
রসুন কুচি – ১ চা চামচ
আদা কুচি – ১ চা চামচ
আস্ত শুকনা মরিচ – ২-৩ টি

প্রণালী :
১) ভাজা জিরা ,জয়ফল , গরম মসলার গুড়া ও জয়েত্রী বাদে বাকি সব মসলা দিয়ে মাংস খুব ভালো ভাবে উল্টিয়ে পাল্টিয়ে মেখে চুলায় বসিয়ে চুলার আঁচ বাড়িয়ে ৫ মিনিট রান্না করুন .
২) এবার ৫ মিনিট পর চুলার আঁচ মিডিয়ামের চেয়ে একটু কম রেখে মাংস কষিয়ে নিন আর একটু পর পর নেরে দিন , মাংস থেকে পানি উঠে যখন কষিয়ে আসবে তখন হাফ কাপ গরম পানি দিয়ে ঢেকে রান্না করুন .
৩) এবার মাংসে পানি শুকিয়ে যখন থকথকে হবে সেই পর্যায়ে ভাজা জিরা , গরম মশলা , জয়ফল গুড়া ও জয়েত্রী দিয়ে ভালো ভাবে নেরে আরও কিছুক্ষণ রান্না করুন ওপর দিকে অন্য চুলায় বাগারের জন্য তেল গরম করে তাতে পিয়াজ , আদা রসুন কুচি ও শুকনা মরিচ দিয়ে লালচে করে ভেজে মাংসে ঢেলে দিন .
৪) এবার মাংস না ঢেকে অবিরত নাড়তে থাকুন কিছুক্ষণ পর মাংসের কালার কালচে হবে ও তেল ভেজে উঠবে তখন চুলা বন্ধ করে ঢেকে রেখে দিন ১০ মিনিট , ব্যাস তৈরি হয়ে গেল এবার উপরে পিয়াজ বেরেস্তা দিয়ে পরিবেশন করুন দারুন মজার কালা ভুনা .

চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী গরুর কালা ভুনা