পেটের ব্যথা দূর করার উপায়

বিভিন্ন কারণে পেট ব্যথা হতে পারে। পেট ব্যথা একবার শুরু হলে তা আর সহজে থামতে চায় না। যন্ত্রণাদায়ক এই পেট ব্যথার হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য হুটহাট ওষুধ খেয়ে থাকেন অনেকেই। এইভাবে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ খাওয়া একদমই উচিত নয়। যেকোন ওষুধ খাওয়ার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত। হয়তো আপনার একটি ভুল ওষুধ সেবন হতে পারে বড় কোন রোগের কারণ। পেট ব্যথা ঘরোয়া কিছু উপায়ে ভাল করা সম্ভব।

১। অরুচি, হজম সংক্রান্ত পেট ব্যথা
আধা চা চামচ সাধারণ লবণ এবং বিট লবণের গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। এর সাথে এক চিমটি আদা গুঁড়ো, গোল মরিচ গুঁড়ো, হিং ভাল করে মিশিয়ে নিন। এটি দিনে তিনবার পান করুন।

২। গ্যাসের কারণে পেট ব্যথা
অ্যান্টিপাসমোডিক এবং অ্যান্টিফ্লাটিউলেন্ট উপাদান সমৃদ্ধ হিং। এটি গ্যাস সংক্রান্ত পেট ব্যথা দূর করতে সাহায্য করে। এক গ্লাস কুসুম গরম পানিতে এক চিমটি হিং মিশিয়ে নিন। এটি দিনে দুই থেকে তিনবার পান করুন। এরসাথে আপনি এক চিমটি লবণ মিশিয়ে নিতে পারেন। এটি পেট ব্যথা কমিয়ে দেওয়ার সাথে সাথে পেটের গ্যাস কমাতে সাহায্য করবে। এছাড়া এক কুসুম গরম পানির সাথে এক চা চামচ হিং মিশিয়ে নিন। এই পানির মধ্যে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে নিয়ে পেটের উপর ১০ থেকে ১৫ মিনিট রাখুন। এটিও পেটের ব্যথা কমিয়ে দিবে।

৩। ডায়রিয়া ও ডিসেন্ট্রি জনিত ব্যথা
এক কাপ ডালিমের রস দিনে দুইবার পান করুন। এটি পেট ব্যথা দূর করে এবং ডায়ারিয়া বন্ধ করে দেয়। এছাড়া এক গ্লাস বাটার মিল্কের সাথে জিরা গুঁড়ো মিশিয়ে পান করতে পারেন।

৪। গ্যাসে জ্বালাপোড়া এবং গ্যাস সংক্রান্ত পেট ব্যথা
এক গ্লাস পানিতে ২০ টি কালো কিসমিস সারা রাত ভিজিয়ে রাখুন। পরের দিন সকালে খালি পেটে এটি পান করুন। এটি পেট জ্বালাপোড়া কমিয়ে গ্যাস কমাতে সাহায্য করে থাকে।

৫। মাসিকজনিত পেটব্যথা
একটি আদা কুচি করে এক কাপ পানিতে ৫ মিনিট জ্বাল দিন। জ্বাল হয়ে আসলে এতে মধু এবং লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এটি দিনে তিনবার পান করুন মাসিকের সময়। এছাড়া রান্নায় এবং সালাদে আদা কুচি মিশিয়ে খেতে পারেন। আদা মাসিকজনিত পেট ব্যথা কমাতে সাহায্য করে থাকে।

source

পেটের ব্যথা দূর করার উপায়