Eiffel scholarship – আইফেল স্কলারশিপ

Eiffel scholarship – ফ্রান্সে পড়াশুনা করতে স্কলারশিপ প্রত্যাশীদের জন্য একটি সম্মানজনক স্কলারশিপ হলো আইফেল এক্সেলেন্স স্কলারশিপ। এটি ফ্রান্স সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বেশ জনপ্রিয় একটি স্কলারশিপ।

Eiffel scholarship

প্রতি বছর বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মেধাবী শিক্ষার্থীরা ফ্রান্সের বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে মাস্টার্স ও পিএইচডি প্রোগ্রামে পড়তে আসেন এই স্কলারশিপ প্রোগ্রামের মাধ্যমে।

এই স্কলারশিপের আওতায় ১২ মাস থেকে ৩৬ মাস মেয়াদী মাস্টার্স প্রোগ্রাম ও ১০ মাস মেয়াদী পিএইচডি কোর্সের অর্থায়ন করা হয়ে থাকে।এই স্কলারশিপের আধীনে প্রকৌশল, আইন, ব্যবস্থাপনা, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, অর্থনীতি বিষয়ে পড়ার সুযোগ পাওয়া যায়।

স্কলারশিপের আওতায় মাস্টার্সে ১১০০ ইউরো ও পিএইচডিতে ১৪০০ ইউরো ভাতা পাওয়া যায়। এছাড়াও বিমান ভাড়া, স্বাস্থ্য বীমা, আবাসিক ও অন্যান্য ভাতাও পাওয়া যায়।

এই স্কলারশিপে মাস্টার্স কোর্সে সর্বোচ্চ ৩০ বছর আর পিএইচডি কোর্সে সর্বোচ্চ ৩৫ বছর বয়সীরা আবেদন করতে পারবে। ফ্রান্সের কোনো নাগরিক এই স্কলারশিপে আবেদন করতে পারবে না। পূর্বে কেউ স্কলারশিপ পেয়ে থাকলে আরেকবার আবেদন করতে পারবেন না। কিন্তু পূর্বে কেউ মাস্টার্সে এই স্কলারশিপ পেলে পিএইচডির জন্য আবার তিনি আবেদন করতে পারবেন। শিক্ষার্থীকে অবশ্যই ইংরেজি অথবা ফ্রেঞ্চ ভাষায় পারদর্শী হতে হবে।

স্কলারশিপটিতে আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয় ডিসেম্বর থেকে জানুয়ারি মাসের মধ্যে।
বাংলাদেশসহ বিশ্বের সব দেশের শিক্ষার্থীরা আইফেল এক্সেলেন্স স্কলারশিপ প্রোগ্রামের জন্য আবেদন করতে পারবে।

আইফেল এক্সেলেন্স স্কলারশিপ প্রাপ্তির জন্য ফ্রান্সের কিছু নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে সরাসরি আবেদন করতে হবে। আবেদনের জন্য ফরম পূরণ করতে হবে ও বিশ্ববিদ্যালয়কে জানিয়ে দিতে হবে যে প্রার্থী আইফেল এক্সেলেন্স স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে চায়। পরবর্তী সময়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাকে জানিয়ে দেবে সে স্কলারশিপ পেয়েছে কি না।

উল্লেখ্য, এই স্কলারশিপে শিক্ষার্থী সরাসরি আবেদন করতে পারবে না। তাদের বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বা ফ্রেঞ্চ হাইয়ার এডুকেশন ইন্সটিটিউশন্সের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।

আবেদন ও অন্যান্য বিষয়ে বিস্তারিত জানতে ভিজিট করতে হবে-
https://www.campusfrance.org/…/eiffel-scholarship

You are currently viewing Eiffel scholarship – আইফেল স্কলারশিপ