কঙ্গনার অফিস ভাঙার কাজ শুরু

অভিনেত্রী কঙ্গনা রাণৌতের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান মণিকর্ণিকা ফিল্মসের অফিসের অবৈধ্য অংশ ভাঙার কাজ শুরু করেছে বৃহন্মুম্বাই মিউনিসিপ্যাল করপোরেশন (বিএমসি)। বুধবার (৯ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে এটি ভাঙার প্রক্রিয়া শুরু হয়।

এদিকে মানালি থেকে আজ মুম্বাইয়ের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন কঙ্গনা। মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারে অফিস ভাঙার বিষয়টি নিয়ে তিনি লিখেছেন, ‘আমি যে ভুল নই তা আমার শত্রুরা বারবার প্রমাণ করে। এজন্যই আমার মুম্বাই এখন পাকিস্তান শাসিত কাশ্মিরের মতো।’

অন্য এক টুইটে তিনি লেখেন, ‘আমার বাড়ির কোনো অংশই অবৈধ্য নয়। এছাড়া কোভিডের কারণে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সকল ভাঙচুরের কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে সরকার।’

কঙ্গনার দাবি, শিবসেনার সঙ্গে দ্বদ্বের জেরেই মহারাষ্ট্র সরকার তার পেছনে লেগেছে এবং এজন্যই বিএমসি তার অফিস ভাঙছে। শুধু তাই নয়, নিজের অফিসকে রাম মন্দির ও বিএমসিকে বাবরের সঙ্গে তুলনা করেছেন কঙ্গনা।

এর আগে মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) কঙ্গনার অফিসে কাঠামোগত ত্রুটি খুঁজে পায় বিএমসি। এরপর এই অভিনেত্রীর অফিসের গেটে নোটিশ ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। পাশাপাশি এই বিষয়ে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছিল।

বৃহন্মুম্বাইয়ের অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার বিনায়ক ভিসপুটে বলেন, ‘আমরা আজই ভাঙার কাজ শুরু করব। এই অফিসে ৮-১০টি কাঠামোগত নিয়ম লঙ্ঘন করা হয়েছে। পরবর্তী সময়ে এ বিষয়ে আইন মেনে আরো ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এর আগে টুইটারে মুম্বাই পুলিশের সমালোচনা করেন কঙ্গনা। এরপর শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউতের সঙ্গে এই অভিনেত্রীর দ্বন্দ্ব শুরু হয়। এমনকি এই অভিনেত্রীকে মুম্বাইয়ে না আসার জন্য হুমকি দেওয়া হয়েছে।

কঙ্গনার অফিস ভাঙার কাজ শুরু