তবে কি নেইমার ও করোনা পজিটিভ ?

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ হারের ধাক্কা সামলে উঠতে না উঠতেই আরও এক ধাক্কা প্যারিস সেইন্ট জার্মেই-পিএসজির দলে। ফ্রান্সের ক্লাবটির দুই গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তারা হলেন-মিডফিল্ডার অ্যাঙ্গেলা ডি মারিয়া ও লিওনার্দো পেরেদেস।

চলতি সপ্তাহে তারা অবকাশযাপন করতে গিয়েছিলেন স্প্যানিশ দ্বীপ ইবিজিয়ায়। ফিরে এসে করোনা টেস্ট করালে তারা পজিটিভ ধরা পড়েন। এই দ্বীপে অবকাশযাপনে গিয়েছিলেন নেইমার জুনিয়রও। তাই তাকে নিয়েও শঙ্কা দেখা দিয়েছে। খবর ডেইলি মেইল ও ইএসপিএনের।

চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালের পর ক্লাবের সব খেলোয়াড় অবকাশযাপনের উদ্দেশে পাড়ি জমান স্পেনের দ্বীপ ইবিজিয়ায়। আর সেখান থেকেই করোনায় আক্রান্ত হন ডি মারিয়া ও পেরেদেস।

ডি মারিয়া ও পেরেদেসের সঙ্গে স্পেনে গিয়েছিলেন নেইমার জুনিয়রও। নেইমারের সঙ্গী ছিলেন তার ছেলে ও বাবা। আর তাই তো আশঙ্কা দেখা দিয়েছে তিনিও করোনা পজিটিভ হতে পারেন।

এই তিনজনের সঙ্গে আরও ছিলেন কেইলর নাভাস ও অ্যান্ডার হেরেরা। শুধু তাই নয়, পিএসজির প্রায় সব খেলোয়াড়ই একসঙ্গে অবকাশযাপন করতে স্পেনে গিয়েছিলেন।

আর খেলোয়াড়দের করোনা আক্রান্তের কারণে দুশ্চিন্তার ভাঁজ কপালে পিএসজির। কেননা আগামী ১০ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে ২০২০-২১ মৌসুমের লিগ ওয়ান। আর মৌসুমের খেলা মাঠে গড়ানোর আগে আরও একবার নেইমারদের করোনাভাইরাসের পরীক্ষা করা হবে জানায় পিএসজি।

করোনা পজিটিভ হলেও ডি মারিয়া ও পেরেদেসের কোনো প্রকার উপসর্গ দেখা দেয়নি। দুই খেলোয়াড়ই শারীরিকভাবে সুস্থ আছেন এবং নিজেদের সেলফ আইসোলেশনে রেখেছেন।

নেইমারের শরীরে করোনার কোনো উপসর্গ প্রকাশ পাওয়ার খবর এখনও পাওয়া যায়নি। নেইমাররা যখন প্যারিসে অনুশীলনের জন্য ফিরবেন, তখন তাদের আরও পরীক্ষা করা হবে বলে ক্লাব সূত্রে জানা গেছে।