প্রাইজবন্ড ড্র বাংলাদেশ

বাংলাদেশ ব্যাংকের অধীনে জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর কর্তৃক প্রবর্তিত এক প্রকার কাগুজে মুদ্রা। প্রাইজবন্ড অনেকটা লটারির মতো কিন্তু লটারি না। লটারি যেমন একবার ”ড্র” হয়ে গেলে সেটার আর মেয়াদ থাকেনা এবং লটারিটির মূল্যও থাকেনা অর্থাৎ লটারিতে না জিতলে পুরো টাকাটা লস। এদিকে প্রাইজবন্ড এর ”ড্র” হয়ে যাওয়ার পরও এর মেয়াদ শেষ হয়না। বাংলাদেশ ব্যাংকের মাধ্যমে প্রাইজবন্ড সর্বপ্রথম চালু হয় ১৯৭৪ সালে।

Prize Bond Bangladesh

সমাজের সব শ্রেণির মানুষের মধ্যে সঞ্চয় প্রবণতা বৃদ্ধির জন্য সরকার “জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর” এর মাধ্যমে সরাসরি জনগণের কাছ থেকে ঋণ সংগ্রহ করে প্রাইজবন্ড বিক্রয় করার মাধ্যমে এবং সরকার তা আবার কিনে নিয়ে সে ঋণ পরিশোধ করে। এ বন্ড ক্রয় করে গ্রাহক তার ব্যক্তিগত লাভের পাশাপাশি দেশ গড়ার কাজেও নিজেকে নিয়োজিত করতে পারে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সব শাখা অফিস, সব বাণিজ্যিক ব্যাংক, জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তরের অধীন সারাদেশে ৭১টি সঞ্চয় ব্যুরো অফিস এবং পোস্ট অফিস থেকে ১০০ টাকা মূল্যমানের বন্ড কেনা ও ভাঙানো যায়।

প্রাইজবন্ডের ”ড্র” অনুষ্ঠিত হয় বছরে চারবার যথাক্রমে ৩১ জানুয়ারি, ৩০ এপ্রিল, ৩১ জুলাই ও ৩১ অক্টোবর। তবে উক্ত তারিখগুলোর কোনটিতে কোন সাপ্তাহিক ছুটি (বর্তমানে শুক্র ও শনিবার) বা সরকারি ছুটি (সাধারণ/নির্বাহী আদেশে/ঐচ্ছিক), অথবা অন্য কোন কারনে প্রাইজবন্ডের ”ড্র” অনুষ্ঠিত হতে না পারলে পরবর্তী কার্যদিবসে তা সম্পন্ন করা হয়।

“ড্র” এর ফলাফল পাওয়া যায় বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় অথবা বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েব সাইটে .

পুরুস্কারের মূল্যমান যথাক্রমে প্রথম পুরুস্কার একটি ৬ লাখ টাকা, দ্বিতীয় পুরুস্কার একটি ৩ লাখ ২৫ হাজার টাকা, তৃতীয় পুরুস্কার দুটি ১ লাখ টাকা করে, চতুর্থ পুরুস্কার দুটি ৫০ হাজার টাকা করে এবং পঞ্চম পুরুস্কার ৪০টি ১০ হাজার টাকা করে।

প্রাইজবন্ডের ”ড্র” অনুষ্ঠিত হয় বছরে চার বার যথাক্রমে ৩১ জানুয়ারি, ৩০ এপ্রিল, ৩১ জুলাই ও ৩১ অক্টোবর। তবে উক্ত তারিখগুলোর কোনটিতে কোন সাপ্তাহিক ছুটি (বর্তমানে শুক্র ও শনিবার) বা সরকারি ছুটি (সাধারণ/নির্বাহী আদেশে/ঐচ্ছিক), অথবা অন্য কোন কারনে প্রাইজবন্ডের ”ড্র” অনুষ্ঠিত হতে না পারলে পরবর্তী কার্যদিবসে তা সম্পন্ন করা হয়।

প্রাইজবন্ড এর মূল্য কখনো শেষ হয়না। প্রাইজবন্ড এর কয়েকবার ড্র হওয়ার পরও, চাইলে সেগুলো ভাঙ্গিয়ে আবার টাকা নিয়ে আসা যায়। তবে প্রাইজবন্ডের গ্রাহক কোন সুদ পাবেন না, এটি মুলত সরকারের প্রতি জনগণের একটি সুদ মুক্ত বিনিয়োগ। তাই প্রাইজবন্ডকে সুদ মুক্ত জাতীয় বন্ড বলা হয়।

ওয়েবসাইট থেকে রেজাল্ট দেখুন

Related Topics

লকডাউনে প্রয়োজনীয় চলাচলে লাগবে মুভমেন্ট পাস

দেশে করোনা সংক্রমণ রোধে আগামীকাল থেকে শুরু হতে যাচ্ছে সপ্তাহব্যাপী কঠোর লকডাউন। ইতোমধ্যে পুলিশ সদর দফতর সূত্রে জানা গেছে, সর্বাত্মক লকডাউনে জরুরি প্রয়োজনে ঘরের বাইরে চলাচলের জন্য ১৪টি শ্রেণিতে ‘মুভমেন্ট পাস’ দেবে পুলিশ। এই পাসধারী ব্যক্তি সড়কে নির্বিঘ্নে চলাচল করতে পারবেন। তবে এই পাস সবাইকে দেওয়া হবে না। শুধু জরুরি সেবার প্রয়োজনে এই পাস দেওয়া […]

ড্রাইভিং লাইসেন্স এর আবেদনের পদ্ধতি

ড্রাইভিং লাইসেন্স বর্তমানে যে কোন মানুষের ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি জিনিস। যদি আপনি কোন রকম গাড়ি চালান তাহলে ড্রাইভিং লাইসেন্স আপনার জন্য অবশ্য প্রয়োজনীয়। এখন থেকে আপনারা বাড়িতে বসে অনলাইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স এর জন্য এপ্লাই করতে পারবেন। আসুন দেখে নেওয়া যাক কিভাবে করবেন। BD driving license নিচের ধাপগুলো যথাযত ভাবে অনুসরণ করে অনলাইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স […]

ইসলামী ব্যাংক ডেবিট কার্ড

বিভিন্ন সুবিধা সংযোজন করে ডুয়েল প্রি-পেইড কার্ড নিয়ে এসেছে বেসরকারি খাতের সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড। দেশে-বিদেশে যেন সহজে ব্যবহার করা যায় সেলক্ষ্যে এই কার্ড অত্যন্ত সময়োপযোগী করে প্রণয়ন করা হয়েছে। International Debit card রোববার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, এটি এমন একটি ডুয়েল কারেন্সি ডেবিট কার্ড, যা দেশে […]

অনলাইনে NID এর আবেদন

ঘরে বসে এক ক্লিকেই সেরে ফেলুন আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের সমস্ত কাজ । জাতীয় পরিচয়পত্র হারিয়ে গিয়েছে, পরিচয়পত্র সংশোধন করতে হবে, নতুন ভোটার হিসেবে নিবন্ধন আবেদন, হারিয়ে যাওয়া বা নষ্ট হওয়া পরিচয়পত্র নতুন করে তোলা, ছবি বা স্বাক্ষর পরিবর্তনের আবেদন সবকিছু হবে ঘরে বসেই । NID online নির্বাচন কমিশনের services.nidw.gov.bd এই ওয়েবসাইটে গিয়ে এখন ঘরে বসেই […]

ঘরে বসে অনলাইনে জিডি করুন

মাত্র তিন ধাপে সম্পন্ন হবে ডিজিটাল জিডি, অনলাইনে জি ডি সার্টিফিকেট ডাউনলোড করুন , জেনে নিন জিডির সর্বশেষ অবস্থা । জিডি আবেদন করতে যা প্রয়োজন -আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের নম্বর -আপনার সচল মোবাইল নম্বর -আপনার জন্ম তারিখ Online GD জিডি আবেদনের নিয়মাবলী প্রথম ধাপ: -আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের নম্বর ,মোবাইল নম্বর ও জন্ম তারিখ লিখে […]

প্রাইজবন্ড ড্র বাংলাদেশ
Prize bond