অনলাইন সার্ভে করে টাকা আয়

সার্ভে কাজ করে অনলাইন থেকে আয় বর্তমানে সবচেয়ে বহুল আলোচিত একটি টপিক। অনলাইন থেকে সহজে ইনকাম করার অন্যতম একটি মাধ্যম হলো সার্ভে সাইট। বর্তমানে বাংলাদেশ থেকেও বহু বেকার তরুণ তরুণী সার্ভে কাজ করে মাসে ১৫,০০০- ২০,০০০ টাকা আয় করছেন।

Online survey Bangladesh

সার্ভে করে অনলাইন থেকে আয় করার জন্যে আপনার বাড়তি কোনো স্কিলের প্রয়োজন নেই। শুধুমাত্র বেসিক কম্পিউটার জ্ঞান, গুগল সার্চ করার পারদর্শিতা এবং টুকটাক হালকা বেসিক পর্যায়ের ইংরেজি জানলেই সার্ভে করে আয় করা যায়।

সার্ভে হলো একধরণের রিসার্চ মেথড যার মাধ্যমে কোনো নিদৃষ্ট গোষ্ঠী বা গ্রুপ এর চাহিদা, আগ্রহ, কি পছন্দ করে অথবা কি পছন্দ করেনা এগুলোর উপর ভিত্তি করে তাদের থেকে ডাটা সংগ্রহ করা।

এই ডাটা গুলো পরবর্তীতে কাজে লাগিয়ে, ডাটা গুলো ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করে এগুলোকে কাজে লাগানো। এই রিসার্চ গুলো সাধারণত বিভিন্ন উপায়ে, বিভিন্ন পদ্ধতিতে করা হয়ে থাকে। যাতে করে একদম সঠিক তথ্য বা ডাটা একজন রিসার্চার বের করে আনতে পারেন।

Online survey Bangladesh

অনলাইন সার্ভে সাইট দেখতে এখানে ক্লিক করুন

সার্ভে গুরুত্বপূর্ণ কেন? (Importance of Survey)

মার্কেট প্রতিনিয়ত পরিবর্তনশীল। আজকে যে প্রোডাক্টটির চাহিদা বাজারে আছে আগামীকাল সেই একই প্রোডাক্ট এর চাহিদা নাও থাকতে পারে। আজ ক্রেতা যে জিনিসটি পছন্দ করে ক্রয় করছে কাল সেটা নাও ক্রয় করতে পারে।

তাই মার্কেট সম্পর্কে সঠিক ধারণা ও জ্ঞান রাখা একটি কোম্পানী এর জন্যে অনেক জরুরী এবং অতীব গুরুত্বপূর্ণ। না হলে কিছুদিন পরই কোম্পানীটির ধ্বসে যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল।

বাজারে টিকে থাকার জন্যে, তাদের প্রোডাক্ট এর গুণগত মান রক্ষা করার জন্যে প্রতিনিয়ত সার্ভে বা রিসার্চ করতে হয়। আর এই কারণেই সার্ভে প্রতিটি কোম্পানি এর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

একটি কোম্পানি কতটা সফল হবে তা যেমন কোম্পানি এর পাবলিসিটি এর উপর নির্ভর করে তেমনি একটি কোম্পানি যদি তাদের মার্কেট বা বাজার সম্পর্কে ভালো ধারণা রাখে এবং তাদের ক্রেতারা কেমন জিনিস বেশি পছন্দ করে এবং কোন জিনিসটা অপছন্দ করে তা সম্পর্কে ভালো জ্ঞান রাখে তাহলে সেই কোম্পানির সফল হওয়ার সম্ভাবনা ১০০% থাকে।

তাই তারা তাদের প্রোডাক্ট, তাদের বাজার সম্পর্কে ডাটা সংগ্রহ করার জন্যে এই সার্ভে কাজ গুলো দিয়ে থাকে। আমরা সেই কাজ গুলো কিছু টাকার বিনিময়ে করে থাকি। এর ফলে তারা যেমন লাভবান হয় তেমনি আমরাও অর্থ আয় করতে পারি।

সার্ভে জব করার জন্য কি কি প্রয়োজন হবে?

-একটি ডেস্কটপ/ল্যাপটপ/স্মার্টফোন।
-একটি USA IP বা USA VPS।

IP এবং VPS কেনো লাগবে?
আমরা যেহেতু বাংলাদেশে বসবাস করি তাই চাইলেই ফ্রীতে এই সার্ভে জব গুলো আমরা করতে পারবো না। এর জন্যে আমাদের VPS কিংবা IP ক্রয় করতে হবে।

কারণ- বাংলাদেশ থেকে সরাসরি সার্ভে কাজগুলো করতে পারবেন না। বাংলাদেশের আইপি দিয়ে এই কাজ গুলো করা সম্ভব না। আর এর জন্যই আপনাকে এই দুইটা জিনিস এর যে কোনো একটা ক্রয় করতে হবে। যাতে করে আপনি আপনার পিসি কিংবা ল্যাপটপ এর আইপি পরিবর্তন করতে পারেন।

যখন আপনি আপনার বাংলাদেশের আইপি পরিবর্তন করে আমেরিকার আইপি কানেক্ট করবেন তখন আপনি খুব সহজেই এই কাজগুলো করতে পারবেন।

Online survey Bangladesh

অনলাইন সার্ভে সাইট দেখতে এখানে ক্লিক করুন

সার্ভে করে আয় করার জন্য কিছু প্রয়োজনীয় টিপসঃ

সার্ভে করে অনেকে বেশি আয় করেন, আবার কেউ করতেই পারেননা। এরচেয়েও বড় কথা সার্ভে মানেই নিজের সম্পর্কে তথ্য দেওয়া। তাই ইনকাম বৃদ্ধি করার জন্য এবং নিজের নিরাপত্তার জন্য নিচের টিপসগুলো মনে রাখুন।

১. সবচেয়ে বেস্ট সার্ভে সাইট গুলোতে কাজ করুন
অনেক সার্ভে সাইট আছে পুরো পৃথিবীতে। সবগুলোতে যেমন সাইন আপ করা ঠিক হবে না তেমনি সব সার্ভে সাইট গুলোতে কাজ করাও সম্ভব না।

তাই প্রথমেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে কোন গুলো টপ সার্ভে সাইট। প্রথমে সেগুলো বাছাই করে তারপর সে গুলোতে কাজ শুরু করে দিতে হবে। তাহলে বেশি আয়ের সম্ভাবনা আছে।

২. ব্যাক্তিগত তথ্য দেওয়ার সময় সতর্ক থাকুন
একটি কোম্পানি যখন আপনাকে সার্ভে প্রদান করবে তখন কিছু ব্যাক্তিগত প্রশ্ন করে থাকে। এই প্রশ্নগুলোর উত্তর দেওয়ার সময় সতর্ক থাকুন।

কারণ এই প্রশ্নগুলোর জন্য আপনি যেমন ভালো কাজ পেতে পারেন তেমনি এর ভুল উত্তরের জন্য আপনার একাউন্ট ব্যান হয়ে যেতে পারে।

৩. সার্ভে কাজ করার জন্য একটি নির্দিষ্ট সময় সেট করুন
সার্ভে কাজ যেমন সহজ তেমনি অনেক ধৈর্য্যেরও প্রয়োজন। তাই সার্ভে কাজ করার জন্য একটি উপযুক্ত সময় নির্বাচন জরুরী। ঠিক আমাদের যেমন অফিস টাইম থাকে সেরকম।

প্রতিদিন যদি আপনি ওই সময় মাফিক কাজ করতে পারেন তাহলে মাস শেষে ভালো টাকা আয় করতে পারবেন। প্রত্যেকটি কাজেই ধারাবাহিকতা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

৪. এন্টিভাইরাস ইনস্টল করুন
অনেক সার্ভে সাইট আছে যেগুলো থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট ব্যবহার করে থাকে। তাই সার্ভে কাজ শুরু করার আগে অবশ্যই একটি ভালো মানের এন্টিভাইরাস ইনস্টল করতে হবে। তাহলে আপনার ডেস্কটপ বা ল্যাপটপের ক্ষতি হওয়ার আশংকা কম থাকবে।

৫. স্বয়ংক্রিয় পূরণ (Auto Fill) চালু রাখুন
আমি সবাইকে রিকমেন্ড করবো গুগল ক্রোম ব্রাউজার ব্যবহার করার জন্য। কারণ এই ব্রউজারে অটো ফিল ব্যবস্থা দিয়ে দেওয়াই থাকে। তাই এক জিনিস বার বার পূরণ করার দরকার পরে না বিশেষ করে ব্যাক্তিগত তথ্যগুলো বার বার পূরণের প্রয়োজন পরে না।

যেহেতু সার্ভে কাজ করার জন্য ব্যাক্তিগত তথ্যগুলো বার বার দিতে হয় তাই সময়ও নষ্ট হয় অনেক আর তাই অটো ফিল আপনার সময় ও শ্রম দুটোই বাঁচাতে পারে।

৬. অযোগ্যতা (Disqualification) পরিহার করুন
অযোগ্যতা বা Disqualification পরিহার করুন এতে করে আপনার সময় বাঁচবে। কিছু কিছু সার্ভে করার সময় আপনাকে Disqualify করে দিতে পারে আবার অনেক ক্ষেত্রে কিছু সার্ভে আছে যেগুলো ৫-১০ মিনিট করার পর Disqualify হয়ে যেতে পারে। এগুলো নিয়ে পরে না থেকে নতুন সার্ভে শুরু করুন। এতে করে আপনার আয় বেড়ে যাবে এবং সময় বাঁচবে।

৭. ভালো মানের IP কিংবা VPS ব্যবহার করুন
একটি ভালো মানের IP কিংবা VPS আপনার অনলাইন সার্ভে আয় দ্বিগুন করে দিতে পারে। কিছু কিছু VPS ও IP আছে যেগুলো অনেক সুলভ মূল্যে পাওয়া যায় ভুলেও সেগুলো নেওয়া যাবে না তাহলে সার্ভে সাইট গুলো তে ভালো মতো কাজ পাওয়া যাবে না এবং একাউন্ট ব্যান হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে কিন্তু ভালো মানের IP ও VPS এ এই সম্ভাবনা নেই। বরং আপনার আয় আরো বেশি হবে। তাই একটি ভালো মানের VPS ও IP অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

অনলাইন সার্ভে সাইট দেখতে এখানে ক্লিক করুন

Leave a Reply

FREELANCING
EDUCATION
CONTRIBUTION
Language »
Scroll to Top