বাংলাদেশের প্রেক্ষিতে অনলাইন জবস

আপনি যদি অনলাইনে কোনো চাকরি বা ফ্রীলান্স কাজ করার চেষ্টা চালাচ্ছেন ,তাহলে এই পোস্টি আপনার সেই স্বপ্ন এক ধাপ এগিয়ে দিবে ! আমরা এই আর্টিকেলে আলোচনা করব কিভাবে অনলাইন জব করে আপনি নিজে স্বনির্ভর হতে পারবেন।বা সোজা কোথায় বলতে হলে পার্ট টাইম ফ্রীলান্স কাজ করে কিভাবে কিছু এক্সট্রা পয়সা পকেটে আনতে পারেন সেই মাধ্যম গুলি জানার চেষ্টা করবো।

Online jobs in Bangladesh

Online jobs in Bangladesh
Online jobs in Bangladesh

অনলাইন জীবিকা কি ? ইন্টারনেটের সাহায্যে বাড়িতে বসে কম্পিউটার, ল্যাপটপ বা অন্যান্য ডিভাইস এর মাধ্যমে কোনো কোম্পানি বা ইন্ডিভিজুয়াল ব্যক্তির কাজ করাকে অনলাইন জীবিকা বলে।

অনেকের প্রশ্ন,অনলাইন জব করতে চাই কোথাই করবো কিভাবে করবো? এই পোস্টে আমি আপনাদের সেই প্রশ্নের উত্তর গুলি দেওয়ার চেষ্টা করবো।
আমরা এখানে নিচে যে কাজ গুলো নিয়ে আলোচনা করব সেগুলো হয়তো আপনার পেতে একটু সময় লাগবে,কিন্তু যখন আপনি এই জব/কাজ গুলো পেয়ে যাবেন তখন লং টাইম এ জব করে একটা ভালো ক্যারিয়ার বা বিজনেস খাড়া করতে পারেন।

যাইহোক তাহলে চলুন নিচে সেই পন্থা গুলো দেখা যাক –

আর্টিকেল শুরু করার আগে আপনাদের একটা কথা পরিষ্কার করেদিতে চাই, এই কাজগুলো যদিও অনলাইনে করতে হবে কিন্তু এগুলো যথেষ্ট পরিশ্রমের কাজ এবং এই গুলির কম্পেটিশন ও ভালই আছে।

সার্চ ইঞ্জিন এভালুয়েটর:
গুগোল (google),বিং(bing) এগুলো একেকটি সার্চ ইঞ্জিন .মানে আমরা এখানে প্রতিনিয়ত সমস্ত কিছু সার্চ করি এবং তারা এর রেজাল্ট দেখায়।

তাই এইসব বড় বড় কোম্পানি অনেক লোককে হায়ার করে তাদের সার্চ রেজাল্ট এর ফিডব্যাক জানতে।সার্চ ইঞ্জিন ঠিকঠাক কাজ করছে কিনা ,সার্চ ইঞ্জিন আরো কিভাবে ইউসার ফ্রেন্ডলি করা যায়,ইউসার কে সঠিক রেজাল্ট দেখানো ,এইসব বিভিন্ন কাজ Search Engine Evaluator রা করে থাকেন।

কয়েকটি কোম্পানি আছে যারা এই ধরণের জব দেয় আপনি এই জব পেয়ে গেলে ঘন্টাই ১০ ডলার বা তার বেশি আর্নিং করতে পারবে।

সব থেকে বড় বেপার হচ্ছে,এখানে কাজ করতে হলে আপনার বেশি এডুকেশন এর দরকার পরে না,আপনার ইন্টারনেটের সম্পর্কে একটু নলেজ থাকলেই হবে।

ওয়েবসাইট:- appen.com,Lionbridge.

অনলাইন টিউটর:
ফ্রেন্ডস আপনি কলেজের স্টুডেন্ট হন বা একজন হোম টিচার,হয়তো আপনি পড়াবার মত লোকালে খুব বেশি স্টুডেন্ট পাননা বা কম বেতন দেয়। কিন্তু ইন্টারনেটের দৌলতে অনলাইন টিউটর দ্বারা আপনার নলেজ কে এখন গোটা পৃথিবীর সঙ্গে শেয়ার করতে পারবেন আর সঙ্গে ভালো পারিশ্রমিক ও পাবেন।

জিহাঁ বহু ছাত্র- ছাত্রী এবং শিক্ষকেরা অনলাইন টিচিং করে মাসে হাজার হাজার টাকা আয় করে নিচ্ছেন।

ওয়েবসাইট : Tutor.com and Wyzant.

সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজার :
আমরা অনেকেই প্রচুর সময় কটাই ফেসবুক,ইনস্টাগ্রাম,টুইটার এইসব সোশ্যাল মিডিয়া সাইটগুলোতে।আপনার হয়তো কোন পেজ থাকতে পারে বা অনেক ফলোয়ার আছে যেখানে আপনি প্রচুর লাইক এবং কমেন্ট পান।

হয়তো আপনার পোস্টের প্রতি অনেকেই প্রভাবিত হয় তাহলে আপনি এটাকে নিজের প্রফেশনাল ইনকামের সোর্স বানাতে পারেন।

জি হাঁ, মার্কেটে বহু কোম্পানি আছে যার এই ধরণের সোশ্যাল মিডিয়া তে পোস্ট করার জন্য অনেক লোক কে hire করে,আপনি ওই ধরণের কোম্পানিতে জব করে মাসে একটা মোটা টাকা স্যালারি পেতে পারেন।

কোথায় জব পাবেন : এই ধরণের জব পেতে হলে আপনাকে নিজে রিসার্চ করতে হবে,বিভিন্ন job portals,কোম্পানি তে খোজ খবর নিন এবং সেখানে এপলাই করুন।

অনলাইন টাইপিং জব:
বর্তমান সময়ে বিভিন্ন কম্পানি রাইটার খুজছেন তাদের ওয়েবসাইট এ ব্লগ পোস্ট লেখার জন্য।বিভিন্ন নিউজ কোম্পানি প্রচুর রাইটার hire করেন।তাদের অডিয়েন্স কে প্রতিনিয়ত আপডেট করতে প্রচুর পোস্টের দরকার হয় তাই তারা অনেক রাইটার hire করেন এই পোস্ট গুলি লেখার জন্য।

সেই ভাবে বিভিন্ন কোম্পানির বিভিন্ন পোস্টবা এ আর্টিকেলের এর মাধ্যমে নিজের প্রোডাক্ট,ব্র্যান্ড কে তাদের অডিয়েন্সের কাছে প্রমোট করেন।আর এই পোস্ট গুলি লেখার জন্য পার্টটাইম-ফুল টাইম রাইটার hire করেন এই কোম্পানি গুলো ।

আপনি ফেসবুকে যে বিভিন্ন নিউজ দেখেন সেইসব নিউস গুলো বিভিন্ন রাইটারের দ্বার লেখা হয়,এবং তারা এর পরিবর্তে একটা মোটা স্যালারি পায়।

আপনি ও বিভিন্ন ভাষাতে রাইটিং করে দিনে ১ হাজার টাকা বা তার বেশি আয় করতে পারবেন।

কোথায় জব পাবেন : এই ধরণের জব পেতে হলে আপনাকে নিজে রিসার্চ করতে হবে,বিভিন্ন job portals -যেমন Indeed,Naukri থেকে এপলাই করে কোনো কোম্পানি তে ফুল টাইম জব করতে পারবেন।

এছাড়া বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং সাইট যেখানে পার্ট টাইম জব করতে পারেন।

ট্রান্সক্রিপশনিস্ট:
ট্রানস্ক্রিপশন হচ্ছে যেকোনো অডিও কে টেক্সট এ কনভার্ট করা,আপনাকে যেকোনো অডিও কে সেই ভাষাতে নির্ভুল টেক্সট এ রূপান্তরিত করতে হবে। এই ট্রানস্ক্রিপশন বেশিরভাগ ভিডিওতে সাবটাইটেল এর ব্যবহার করে।

বহু কোম্পানি আছেন এই ট্রানস্ক্রিপশন এর জন্য বিভিন্ন লোক কে hire করেন আর এই কাজের জন্য মোটা টাকা স্যালারি দেন।

এখানে আপনি ঘটাই ১০ ডলার বা তার বেশি পেতে পারেন ,মাইন্ কথা হচ্ছে যত দ্রুত টাইপ করতে পারবেন আপনি তত বেশি আয় করতে পারেন ।

কোথায় কাজ পাবেন : TranscribeMe and Rev.

অনলাইন ডাটা এন্ট্রি:
ফ্রেন্ডস আপনি যদি ফাস্ট টাইপিং করতে পারেন তাহলে ডাটা এন্ট্রি জব করে নিজে স্বনির্ভর হতে পারবেন। এখানে আপনি দুইভাবে জব করতে পারেন এক হচ্ছে ফ্রিল্যান্সিং করে সেটা পার্টটাইম আর ফুলটাইম জব যেমন আপনি বিভিন্ন জব পোর্টাল গিয়ে নানান কোম্পানির জন্য কাজ করতে পারেন।

ইন্ডিয়াতে এরকম পার্ট টাইম অনলাইন ডাটা এন্ট্রি জবস অনেক পেয়ে যাবেন,আপনি-nokri.com,indeed.com এই সাইট গুলিতে ডাটা এন্ট্রি প্রচুর এডসদেখতে পাবেন।তাছাড়া আপনি বিভিন্ন ফ্রেল্যাংসিং সাইট ও দেখতে পারেন।

সেল প্রোডাক্টস:
বন্ধুগণ,অ্যামাজন এবং ফ্লিপকার্ট বহু মানুষ এই ওয়েবসাইট গুলিতে শপিং করে আর এরফলে গ্রামে সবাই ঘরে বসে সমস্ত জিনিস পেয়ে যাচ্ছেন।

আপনি যেকোন আইটেম সেটা নিজস্ব প্রোডাক্ট বা অন্যের তৈরি কোন জিনিস ,সেগুলি কে আপনি Amazon, flipkart লিস্ট করিয়ে বিক্রি করতে পারেন। এখান বুদ্ধি খাটিয়ে আপনি ভাল রকম প্রফিট কমাতে পারেন তাও আবার ঘরে বসে।

ভার্চুয়াল অ্যাসিস্ট্যান্ট:
ইন্টারনেটের মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে এখন অ্যাসিস্ট্যান্ট এর ও কাজ করা যাই।সেটা যেকোনো personal বিজনেসম্যান বা কোনো কোম্পানি হতে পারে,সেখানে প্রত্যেক দিনের যে নিত্য প্রয়োজনীয় অনলাইন কাজ গুলো করতে হয় তার জন্য আপনাকে ফিজিক্যাল ভাবে মজুদ না থাকলেও চলবে।

যে কাজ গুলি ঘরে বসে রিমোটলি করা যায়, যেমন ব্লগিং,কনটেন্ট রাইটিং, সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজমেন্ট,অ্যাড ক্যাম্পাস,ইমেইল ম্যানেজমেন্ট আরও বিভিন্ন ধরনের কাজ আছে যেগুলি বিভিন্ন কোম্পানি বা কোন বিজনেস পারসন পার্টটাইম -ফুল টাইম ভার্চুয়াল অ্যাসিস্ট্যান্ট hire করে।

কোথায় কাজ পাবেন : upwork.com ,Fiverr,Guru.

উপরে যে কাজ গুলির কথা বললাম এখানে পার্ট টাইম বা ফুল টাইম অনলাইন জব করে আমাদের দেশের ছেলে মেয়েরা হাজার হাজার টাকা আয় করছেন।তাই আপনি ও যদি বাড়িতে বসে ফুল টাইম ইনকাম করতে চান, তাহলে উপরে দেওয়া পন্থা গুলি অবলম্বন করুন।

Leave a Reply

3 thoughts on “বাংলাদেশের প্রেক্ষিতে অনলাইন জবস”

  1. I am a website designer. Recently, I am designing a website template about gate.io. The boss’s requirements are very strange, which makes me very difficult. I have consulted many websites, and later I discovered your blog, which is the style I hope to need. thank you very much. Would you allow me to use your blog style as a reference? thank you!

FREELANCING
EDUCATION
CONTRIBUTION
Language »
Scroll to Top