রবি ইন্টারনেট সেটিং

বাংলাদেশের অধিকাংশ মানুষ মোবাইল ফোন এ ইন্টারনেট ব্যবহার করে থাকে।এই কারণে মোবাইল কোম্পানিগুলো থেকে আমাদের প্রতিনিয়ত ইন্টারনেট এর প্যাকেজ কিনতে হয়।আমরা যখন প্রথমবার ইন্টারনেট কিনি কিংবা প্রথম বার ইন্টারনেট একটিভ করি তখন অটোমেটিক্যালি ওই ফোন কোম্পানির সেটিং আমাদের ফোন এ সেভ হয়ে যায় ।

বর্তমানে প্রায় সবাই এন্ড্রোইড স্মার্ট ফোন ব্যবহার করে । আর অধিকাংশ ফোনগুলো সিম ইন্সার্ট করার সাথে সাথে ইন্টারনেট সেটিং টা ও অটো সেভ করে থাকে।

robi internet setting

তারপর ও মাঝে মাঝে দেখা যায় ইন্টারনেট সেটিংস টা কাজ করে না । তখন সেটটিংসটা রিস্টোর করতে হয় কিংবা রিমুভ করে আবার নতুন করে সেটিং করতে হয়।আবার ডুয়াল সিম এর হ্যান্ডসেট এ সিম স্লট থেকে সিম এক্সচেঞ্জ করলে ও ইন্টারনেট সেটিং টা করে নিতে হয়।আরো অনেক কারণে ইন্টারনেট সেটিং বার বার করতে হয় যেমন : হ্যান্ডসেট ফরমেট করলে , ভুলে সেটিং রিমুভ হলে , অটো সেটিং না হলে অথবা ইন্টারনেট বার বার ড্রপ হলে।এই সমস্ত কারণে আমরা যদি ইন্টারনেট সেটিং এর ম্যানুয়াল সিস্টেম টা জানি তা হলে আমাদের আর বিড়ম্বনা পোহাতে হবে না।

রবি ইন্টারনেট সেটিং

রবি ইন্টারনেট সেটিং এর ক্ষেত্রে আমরা শুধু এন্ড্রোইড স্মার্টফোন এর সেটিংস টা জেনে নেবো।হ্যান্ডসেট এর মডেল কিংবা মোবাইল অপারেটিং সিস্টেমভেদে পদ্ধতি বা ম্যানুয়াল কিছুটা ব্যতিক্রম হতে পারে তবে রবির মেইন সেটটিংসটা একই হবে।

-আপনার হ্যান্ডসেট এর সেটিংস অপসন এ যান ।
-এখন আপনার হ্যান্ডসেট এর সেটিংস থেকে “Access Point Name ” এই অপসন টি খুঁজে বের করুন।
এই অপসন টি, মডেল এবং অপারেটিং সিস্টেমভেদে, “More -more setting , internet , internet setting , mobile network , GPRS ইত্যাদি অপসন এর অন্তর্ভুক্ত হতে পারে।
-Access Point Name এ ক্লিক করলে একটা নতুন স্ক্রিন আসবে।স্ক্রিন এর প্রথমে থাকতে পারে “Name ” , ওইখানে ক্লিক করে আপনি যেকোনো একটা নাম বসাতে পারেন।তবে সাধারণত সবাই সিম অপারেটরের নাম বসায়।স্ক্রিন এর দ্বিতীয় স্তরে থাকবে “APN ” , ওইখানে আপনি “internet ” এই ওয়ার্ড টা লিখে দেবেন।মূলত internet টাই হচ্ছে রবির এক্সেস পয়েন্ট নেইম বা APN ।
-এইবার আপনি সেটটিংসটা সেভ করুন।

More related post…

রবি ইন্টারনেট সেটিং