মাতৃত্বকালীন ভাতা কি এবং কিভাবে পাবেন

Maternity allowance in Bangladesh

পল্লী অঞ্চলের দরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিত গর্ভবতী মহিলাদের অসহায়ত্বের কথা বিবেচনা করে তাদের আর্থিক ও সামাজিক সুরক্ষা দেয়ার জন্য ২০০৭-০৮ অর্থবছর হতে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার দরিদ্র মা’র জন্য মাতৃত্বকালীন ভাতা প্রদান কর্মসূচি গ্রহন করেছে। মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, বাংলাদেশ মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক এই কর্মসূচিটি বাস্তবায়িত হয়ে আসছে।

Maternity allowance in Bangladesh

এই কর্মসূচি বাস্তবায়নে অধিকতর স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বা উপকারভোগীর প্রাপ্তি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে অর্থ বিভাগ, অর্থ মন্ত্রনালয় কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন Strengthening Public Financial Management for Social Protection (SPFMSP) শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় এই MIS টি তৈরি হয়েছে যা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর এবং কর্মসূচির সাথে সংশ্লিস্টগণ ব্যবহার করবেন।

সেবা প্রদান পদ্ধতি:
ইউনিয়ন কমিটি কর্তৃক মাইকিং করে নির্দিষ্ট তারিখে সম্ভাব্য প্রার্থীদের উপস্থিত হবার জন্য প্রচারণা চালানো হয় এবং গর্ভধারিণী মা সম্পর্কে স্থানীয়ভাবে জরিপ এবং তথ্যানুসন্ধান করা হয়। স্কুল, কলেজ/মাদ্রাসার প্রধান, ইমাম, স্থানীয় কাজী এবং ইউনিয়ন ভূমি সহকারীদের নিকট হতে বয়স, বিবাহ, সন্তানসংখ্যা, মাসিক আয়, সম্পদের মালিকানাসংক্রান্ত সুনির্দিষ্ট তথ্য সংগ্রহ করে নির্ধারিত ফরমে পূর্বনির্ধারিত তারিখে প্রাথমিক বাছাই সম্পন্ন করা হয়।

উপকারভোগীদের গর্ভধারণ বিষয়ে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা/স্বাস্থ্য কর্মকর্তার নিকট হতে বিনামূল্যে সনদ সংগ্রহ করেন।

সরজমিনে পরিদর্শন করে প্রাপ্ত তথ্য পরীক্ষা করে আবেদন ফরম পূরণপূর্বক প্রাথমিকভাবে বাছাই করে অনাপত্তি ও সুপারিশসহ জেলা/উপজেলা কমিটিতে প্রেরণ করেন।

উপজেলা কমিটির আবেদনপ্রাপ্তির পর কমিটি চূড়ান্ত তালিকা অনুমোদন করে এবং চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত ভাতাভোগীদের নিকট কার্ড বিতরণ করেন । মাসিক ৩৫০/- হারে প্রতি ৬ মাস অন্তর অন্তর করে ৪বার বা ২৪ মাস ভাতা প্রদান করা হয়।

কিছু তথ্য:
-সেবা প্রাপ্তির সময় ৯৮
-কোনো ফী নেই
-সেবা প্রাপ্তির স্থান: ইউনিয়ন পরিষদ/ব্যাংক UWAO অফিস
-দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা/কর্মচারী: জেলা ও উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র:
-দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি
-উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা/উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা কর্তৃক গর্ভকালীন সনদ
-নাগরিক সনদ, ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকর্তা কর্তৃক প্রদত্ত সনদ, জন্ম নিবন্ধন সনদ

সেবা প্রাপ্তির শর্তাবলি:
“দরিদ্র মা’র জন্য মাতৃত্বকাল ভাতা’’ প্রদান কর্মসূচি বাস্তবায়ন নীতিমালা, মার্চ, ২০১১ অনুযায়ী বাস্তবায়ন হয়ে থাকে। সে অনুযায়ী:

ক. প্রথম বা দ্বিতীয় গর্ভধারণকাল (যেকোনো একবার)

খ. বয়স কমপক্ষে ২০ বছর বা তার ঊর্ধ্বে

গ. মোট মাসিক আয় ১৫০০/- টাকার নিম্নে

ঘ. দরিদ্র প্রতিবন্ধী মা অগ্রাধিকার পাবেন

ঙ. কেবল বসতবাড়ি রয়েছে বা অন্যের জায়গায় বাস করে

চ. নিজের বা পরিবারের কোনো কৃষি জমি, মৎস্য চাষের জন্য পুকুর নেই

ছ. উপকারভোগী নির্বাচনের সময় অর্থাৎ জুলাই মাসে উপকারভোগীকে অবশ্যই গর্ভবতী থাকতে হবে

-বর্ণিত শর্তসমূহের মধ্যে কেউ ক, খ ও ছ সহ কমপক্ষে ৫ (পাঁচ)টি শর্ত পূরণ করলে তার নাম প্রাথমিক তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হবে

-অধিকতর দরিদ্র অগ্রাধিকার পাবেন

-প্রথম ও দ্বিতীয় গর্ভের সন্তান গর্ভাবস্থায় বা জন্মের ২ (দুই) বছরের মধ্যে মারা গেলে তৃতীয় গর্ভধারণকালে ভাতা প্রাপ্য হবেন

-একজন ভাতাভোগী জীবনে একবার ২ (দুই) বছর সময়কালের জন্য মাতৃত্বকাল ভাতা পাবেন

-কোনো কারণে সন্তানের মৃত্যু হলে অথবা গর্ভপাতের কারণে নির্দিষ্ট চক্র অসম্পূর্ণ থাকলে তিনি পুনরায় গর্ভবতী হলে পরবর্তীতে ২ (দুই) বছরের মাতৃত্ব ভাতা প্রাপ্য হবেন, যদি অন্যান্য শর্ত পূরণ হয়ে থাকে

অনলাইন এর মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন করতে চাইলে এখানে ক্লিক করুন। আরো বিস্তারিত জানতে চাইলে এই লিংক থেকে সরকারি ওয়েবসাইট এ ভিসিট করুন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.